শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:৫১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
রাঙ্গামাটিতে ইউপি সদস্য হত্যার মামলায় জেএসএস’র ১০সহ ১৮জনের বিরুদ্ধে মামলা রাঙ্গামাটি বাঘােইছড়িতে প্রকল্প অফিসে দুর্বৃত্তদের গুলিতে ইউপি মেম্বার নিহত বন্য হাতির আক্রমণে লামায় যুবতির মৃত্যু ধর্ষণ মামলায় রাঙ্গামাটিতে ইউপি চেয়ারম্যান  কারাগারে  থানচিতে হিউমেনিটারিয়ান ফাউন্ডেশন গরীব প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বিভিন্ন সামগ্রী বিতরণ বান্দরবান সেনাবাহিনী বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে লামায় মানববন্ধন থানচিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত বান্দরবানে একুশে ফেব্রুয়ারি উদযাপন টানা ছুটিতে বান্দরবানে পর্যটন স্পটগুলোতে পর্যটকদের ঢল
আজ বুদ্ধ পূর্ণিমা, করোনায় বান্দরবানে পালন হচ্ছে না ধর্মীয় অনুষ্ঠান

আজ বুদ্ধ পূর্ণিমা, করোনায় বান্দরবানে পালন হচ্ছে না ধর্মীয় অনুষ্ঠান

জসাইউ মার্মাঃ

বৌদ্ধ ধর্মের প্রর্বতক গৌতম বুদ্ধের জন্ম দিন আজ। এই পূর্ণিমা তিথিতে সিদ্ধার্থ গৌতম বুদ্ধ জন্ম গ্রহন, বোধিসত্ত্ব লাভ ও মহাপরিনির্বাণ এই ত্রিস্মৃতি বিজড়িত হওয়ায় বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের খুবই গুরুত্বপূর্ণ দিন হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

এই দিনটিকে স্মরণ করে যথাযোগ্য মর্যাদায় প্রতি বছরই পালিত হয়ে আসছে। বৌদ্ধ ধর্মের উৎসব হলেও ধর্মীয় সম্প্রীতির দেশ হিসেবে বাংলাদেশে সর্বসাধারণের জন্য এই দিনটি সরকারি ছুটি থাকে। সারা বিশ্বের ন্যায় তিন পার্বত্য জেলাতেও বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উদযাপিত হয়ে আসছে।

সকালে বোধিবৃক্ষে চন্দনের জল সঞ্চালন করে অনুষ্ঠান সূচনা হয়। এর পর পঞ্চশীল ও অষ্টশীল পালন, দুপুরে বুদ্ধের উদ্দেশ্যে ছোয়েং দান, বিকালে ধর্ম দেশনা সন্ধ্যায় হাজার প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও হাজার ফানুস উড়িয়ে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন করা হয়।

তবে এবারে এই বছর পূর্ণিমা তিথি ধর্মীয় অনুষ্ঠান উদযাপিত হচ্ছে না। কারন অদৃশ্য মরনঘাতক করোনা থাবায় এখন বিশ্ব নাজেহাল। বাংলাদেশেও এই রোগের প্রার্দুভাব দেখা দেয়ায় সংক্রমণ এরাতে সরকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মার্কেট ও জনসমাগম বন্ধ ঘোষণা করা হয়। গত দুই দিন ধরে বান্দরবান শহরস্থ উজানী পাড়া কেয়াং (মন্দির) এবং রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারে কেয়াং কমিটির সকল ধর্মীয় অনুষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বান্দরবান শহরে মাইকিং এর মাধ্যমে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদেরকে দুপুরে ছোয়েং কিংবা দানীয় দ্রব্যাদি আহার দান করতে কেয়াং এ সমাবেত না হয়ে নিজ নিজ ঘরে ধর্মীয় অনুষ্ঠানটি পালন করা জন্য অনুরোধ করা হয়।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology