সোমবার, ২০ মার্চ ২০২৩, ০৯:৫৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কেএনএফ’র গুলিতে সেনাবাহিনীর ওয়ারেন্ট অফিসার নিহতের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল রাঙামাটি শহরে কদর বাড়ছে পাহাড়ী ফুল ঝাড়ু লামায় ধর্ষকের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে শিক্ষার্থীরা লামায় কবি এমরানের “অনুভূতির সুর” বইয়ের মোড়ক উন্মোচন থানচিতে মাসব্যাপী বিজিবি অভিযানে শতাধিক একর জমিতে পপিখেত ধংস অবৈধ গরু পাচার রোধে বিজিবি তৎপর তবে নিরব প্রশাসন লামা-আলীকদম সড়কে দুর্ঘটনায় নারী-শিশুসহ আহত ৯ নাইক্ষ্যংছড়ি  সীমান্তে চোরাই গরু আনতে গিয়ে মাইন  বিস্ফোরণে  যুবক আহত বাইশারীতে জেলা পরিষদের উদ্যোগে এতিম ও অসহায়দের মাঝে শীত বস্র বিতরণ কৃষকদের সহায়তা করতে বান্দরবানে কৃষি ঋণ মেলা শুরু হলো
আলীকদমে সেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকে মারধর, বিএনপির ৬০ নেতাকর্মী মামলা

আলীকদমে সেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকে মারধর, বিএনপির ৬০ নেতাকর্মী মামলা

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, বিশেষ প্রতিনিধি লামাঃ
বান্দরবানের আলীকদমে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকে মারধর ও ভাংচুরের অভিযোগ এনে বিএনপির ৩৫ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাতনামা আরও ২৫ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। চৈক্ষ্যং ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সজীব কামালকে মারধরের ঘটনায় সাধারণ সম্পাদক মো. ইউনুচ বাদী হয়ে শনিবার (২২ ডিসেম্বর) রাতে এই মামলা করে। আহত সজীব কামাল (৩২) ২নং চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের চিনারী দোকান এলাকার মৃত মোস্তফা কামালের ছেলে।

মামলার বাদী মো. ইউনুচ বলেন, শুক্রবার (২১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের চিনারী দোকান এলাকায় গণসংযোগ করে বিএনপির নেতাকর্মীরা। তখন বিএনপির নেতাকর্মীরা আওয়ামীলীগের নামে বাজে বাজে মন্তব্য  করে। এসময় ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সজীব কামাল প্রতিবাদ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শনিবার (২২ ডিসেম্বর) সকালে সজীব কামাল বাড়ি থেকে বের হলে চিনারী দোকান এলাকার বিশ মাইল নামক স্থানে পূর্ব থেকে উৎ পেতে থাকা বিএনপির লোকজন তাকে মারধর করে ও ভাংচুর চালায়।

পরে সজীব কামালকে উদ্ধার করে আলীকদম হাসপাতালে আনা হলে জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে। সজীব কামাল বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আলীকদম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিক উল্লাহ বলেন, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতিকে মারধর ও ভাংচুরের অভিযোগে দলের সাধারণ সম্পাদক মো. ইউনুচ বাদী হয়ে স্থানীয় বিএনপির ৩৫ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ২০ থেকে ২৫ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি ১৪৩, ৪৪৮, ২৯০, ৩২৩, ৩২৬, ৩৪১, ৪২৭ ও ৫০৬ ধারায় এজাহার ভুক্ত করা হয়েছে।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology