রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
আর থাকবে না থানচিতে পাথর, শুকিয়ে গেছে পানি কেশবপুরে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৫ থানচি নদীতে ডুবে শিশু মৃত্যু থানচিতে প্রধানমন্ত্রী উপহার আর্থিক সহায়তা প্রদান লামায় গ্রামার স্কুলে বঙ্গবন্ধু বুক কর্ণার ও মুক্তিযোদ্ধা কর্নারের উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রী’র বিশেষ উপহার পেল লামার ৩হাজার ৬শত পরিবার  বান্দরবানে সুয়ালকে রাবার ড্যাম প্রকল্পে অনিয়মে বাধা দেয়ায় শ্রমিক ও স্থানীয়দের সংঘর্ষে আহত ৯ মানছেনা প্রশাসনের জরিমানা ! অবিরাম চলছে আবাদি জমি ও পাহাড় কাটা ৬ রাউন্ড পিস্তলের গুলিসহ এক জনকে আটক করেছে নাইক্ষ্যংছড়ি পুলিশ আলীকদমে ২’শ পরিবারের মাঝে সেনাবাহিনীর ত্রাণ সহায়তা
থানচিতে বুলবুল কারনে পর্যটকদের ভ্রমণের নিষেধাজ্ঞা

থানচিতে বুলবুল কারনে পর্যটকদের ভ্রমণের নিষেধাজ্ঞা

র‌্যামবো ত্রিপুরা. থানচি প্রতিনিধি:
এক সপ্তাহ আগে সৃষ্ট ”বুলবুল” ঘূর্ণিঝড়ের কারনে আজ শনিবার ৯ই নভেম্বর বিকেল থেকে বান্দরবানের থানচি উপজেলার পর্যটন কেন্দ্রে গুলিতে পর্যটকদের ভ্রমণের সাময়িক ভাবে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন।  এই নিষেধাজ্ঞা জারি পর থেকে থানচি উপজেলায় অবস্থানরত শতশত পর্যটক জেলা শহরের উদ্দেশ্যে ত্যাগ করেছে এবং পর্যটন কেন্দ্রের না গিয়ে উপজেলা সদরে নিরাপদ স্থানে আশ্রয় গ্রহন করেছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানানো হয়েছে।

আর একদিকে পর্যটন তথ্য কেন্দ্রের দায়িত্বরত মো: জয়নাল আবেদিন বলেন, থানচি উপজেলার বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্র যেমন, নাফাখুম, আমিয়াখুম, সাতভাই খুম, তিন্দু মুখ, রেমাক্রি মুখ সাঙ্গু নদীতে পর্যটকবাহী ছোট ছোট নৌযান(নৌকা) চলাচলে ও ভ্রমনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করায় আজ বিকাল থেকে কোন নৌযান ছেড়ে যায়নি।

উপজেলা প্রসাশন সূত্রে জানা যায়, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল চট্টগ্রাম উপকুলিয় এলাকায় ৯নং মহাবিপদ সংকেত ঘোষনা করায় থানচি উপজেলায় অবস্থানরত পর্যটকদের পর্যটন কেন্দ্র গুলোতে ভ্রমনের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। সাথে স্থানীয়দের জন্যও বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। আশ্রয় স্থানগুলো হচ্ছে, থানচি বাজার সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, বড় মদক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও পেনেদং পাড়া বৌদ্ধ বিহার।

এই বিষয়ের উপজেলা নির্বাহী অফিসার কার্যালয়ের সহকারী অফিস প্রধান তপন কান্তি দাশ বলেন, আবওয়া অধিদপ্তর বুলবুলকে ৯নং মহা বিপদ সংকেত ঘোষণা করায় উপজেলা সর্বজনসাধারনের জানমালের রক্ষা করার জন্যই এই ঘোষণা এবং আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে সকল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology