মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১২:২৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
লামায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে দুর্যোগে ঝুঁকি হ্রাস ও নিরাপত্তা প্রশিক্ষণ আ.লীগের নেতা হত্যার প্রতিবাদে রুমায় বিক্ষোভ কোটি টাকার ইয়াবাসহ নাইক্ষ্যংছড়ির দুই মাদক পাচারকারী আটক নাইক্ষ্যংছড়ির এলেক্ষ্যং একটি সড়ক উন্নয়নে পাল্টে যাচ্ছে ১০ গ্রামের জীবনের-মান হত্যার তালিকায় রয়েছে আওয়ামীলীগ নেতা বাচনু মারমা- বিক্ষোভ সমাবেশে বান্দরবান জামছড়িতে গুলিতে আওয়ামীলীগ নেতা নিহত, আহত ৫ থানচিতে ভাষা শহীদদের বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন ভাষা শহীদদের স্মরণে রাঙ্গামাটিতে শহীদ মিনারে গুর্খা সম্প্রদায়ের বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্চলি পরকীয়া সন্দেহে এক নারীকে পিটিয়ে হত্যা। আটক-১ রোয়াংছড়িতে প্রায় সাড়ে ৮ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করলেন পার্বত্য মন্ত্রী
নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের নাম ঘোষণা বিকেল ৫টায়

নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের নাম ঘোষণা বিকেল ৫টায়

জাতীয় ডেস্কঃ

নতুন মন্ত্রিসভায় কারা স্থান পাচ্ছেন তা জানাতে আজ (রোববার) বিকেল ৫টায় সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব। সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টায় বঙ্গভবনে নতুন মন্ত্রিসভা শপথ নেবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। প্রথমবারের মতো শপথের আগে নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের নাম ঘোষণা করা হচ্ছে।

৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করে আওয়ামী লীগ। নির্বাচনে ২৯৮ আসনের মধ্যে ২৫৭টিতে জয় পেয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। জোটগতভাবে তারা পেয়েছে ২৮৮ আসন। অন্যদিকে তাদের প্রধান প্রতিপক্ষ বিএনপি ও তাদের জোট পেয়েছে মাত্র সাতটি আসন।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এমপিরা ছাড়া গত বৃহস্পতিবার নবনির্বাচিত এমপিরা শপথ নেন।

জয়ের পর টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠন করতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট, টানা তৃতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী হতে চলেছেন শেখ হাসিনা।

সংবিধানের ৫৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, মন্ত্রিসভায় একজন প্রধানমন্ত্রী থাকবেন এবং প্রধানমন্ত্রী যেভাবে নির্ধারণ করবেন, সেভাবে অন্যান্য মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রী থাকবেন। প্রধানমন্ত্রী ও অন্যান্য মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীদের রাষ্ট্রপতি নিয়োগ দিয়ে থাকেন।

তবে মন্ত্রিসভার সদস্যদের সংখ্যার কমপক্ষে দশভাগের ৯ ভাগ সংসদ-সদস্যদের মধ্য থেকে নিয়োগ পাবেন। সর্বোচ্চ দশভাগের এক ভাগ সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার যোগ্য ব্যক্তিদের মধ্য থেকে মন্ত্রিসভার সদস্য মনোনীত (টেকনোক্র্যাট) হতে পারবেন বলে সংবিধানের ৫৬ অনুচ্ছেদে উল্লেখ করা হয়েছে।

রাষ্ট্রপতি বঙ্গভবনে প্রথমে প্রধানমন্ত্রীর শপথ পড়াবেন। এরপর মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীদের শপথ পড়াবেন রাষ্ট্রপতি। শপথের পর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে দফতর বণ্টন করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।

নতুন মন্ত্রিসভা শপথ নিলে তারাই হবে দেশের নতুন সরকার। শপথ নেয়া পর্যন্ত আগের মন্ত্রিসভা বহাল থাকবে। নতুন মন্ত্রিসভা শপথ নিলে আগের মন্ত্রিসভা স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাতিল হয়ে যাবে।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি বিএনপির বর্জনের মধ্যেই দশম জাতীয় সংসদের নির্বাচন হয়। ১২ জানুয়ারি গঠিত হয় নতুন মন্ত্রিসভা। তখন শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী করে ৪৮ সদস্য বিশিষ্ট নতুন মন্ত্রিসভা গঠন করা হয়। ওই সরকারে প্রধানমন্ত্রী ছাড়া ২৯ জন মন্ত্রী, ১৭ প্রতিমন্ত্রী এবং দু’জন উপমন্ত্রী ছিলেন। পরে কয়েক দফা মন্ত্রিসভায় রদবদল আনা হলে শেষ পর্যন্ত মন্ত্রিসভার আকার দাঁড়ায় ৫২ সদস্যের। তবে নির্বাচনের আগে টেকনোক্র্যাট চারমন্ত্রীকে বাদ দেয়া হয়।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology
error: Content is protected !!