মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৫:০৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
নাইক্ষ্যংছড়িতে বিষ পানে এক গৃহবধূর আত্মহত্যা নিজ ট্রাক্টরেচাপা পড়ে মৃত্যু লামা মন্দিরে হামলার ঘটনার মিথ্যাচারের প্রতিবাদে পৌর মেয়রের সংবাদ সম্মেলন বান্দরবানে রথ বিসর্জনের মধ্য দিয়ে প্রবারণা পূণির্মা সম্পন্ন নাইক্ষ্যংছড়ির দুই চেয়ারম্যান পদে-৫ ও মেম্বার পদে-৭১জনের মনোনয়ন পত্র বৈধ ঘোষণা নাইক্ষ্যংছড়িতে উদযাপিত হচ্ছে প্রবারণা পূর্ণিমা আজ প্রবারণা পূর্ণিমা; মাহা ওয়াহগ্যোয়াই পোয়েঃ নাইক্ষ্যংছড়ি সপ্রাবি অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকদের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত নাইক্ষ্যংছড়িতে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা  আলীকদমে টমটমের ধাক্কায় বৃদ্ধের মৃত্যু
নাইক্ষ্যংছড়িতে সমবায় সমিতির কমিটির নির্বাচন নিয়ে চার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে “ভূয়া বাদী”র মামলা

নাইক্ষ্যংছড়িতে সমবায় সমিতির কমিটির নির্বাচন নিয়ে চার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে “ভূয়া বাদী”র মামলা

আব্দুর রশিদ, নাইক্ষ্যংছড়ি প্রতিনিধিঃ
নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সমবায় অফিস কতৃক পরিচালিত “কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতির নির্বাচন নিয়ে ভূয়া বাদী সাজিয়ে চার সরকারী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বান্দরবান সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গত ১৪নভেম্বর জনৈক নূর আহমদ নামে ব্যক্তি আদালতে অপর মামলা নং- ১৩৪/২০১৮ মামলাটি করেছেন। তবে মামলার এজাহারে বর্ণিত বাদী বলছেন তিনি আদালতে কোন মামলা করেননি। এই নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

সরেজমিনে প্রাপ্ত তথ্য ও উপজেলা বিআরডিবি অফিস সূত্রে জানা গেছে, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতির ব্যবস্থাপনা কমিটির নির্বাচন সমবায় বিধিমালা/২০০৪ এ ৩২ (১) বিধি অনুযায়ী গত ১৭নভেম্বর সম্পন্ন হয়। কিন্তু এর তিন দিন আগে নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউপির জামছড়ি বিত্তহীন সমবায় সমিতির সদস্য ও স্থানীয় মোহছেন আলীর ছেলে নুর আহাম্মদ নির্বাচন বিষয়ে আপত্তি তুলে বান্দরবান সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করার অভিযোগ উঠে। পরে আদালত ওই সংক্রান্তে ব্যাখ্যা চান সংশ্লিষ্টদের কাছে।

এদিকে বিআরডিবি অফিস ও সমিতির নেতৃবৃন্দ পরবর্তীতে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন জনৈক নূর আহাম্মদ আদালতে মামলাটি করেননি। তার নাম, ঠিকানা উল্লেখ করে কে বা কারা মামলাটি করেছেন। উক্ত মামলায় বাদীর নাম রয়েছে নূর আহাম্মদ। পিতা মোহছেন আলী এবং ঠিকানা নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউপির জামছড়ি লিপিবদ্ধ রয়েছে। কিন্তু নূর আহাম্মদ নিজেও জানেন না মামলাটি কে করেছেন।

এবিষয়ে নূর আহাম্মদ সাংবাদিকদের বলেন, “নির্বাচনে অংশ নিতে আমি মনোনয়ন ফরম নিয়েছিলাম ঠিক। পরে শারীরিক অবস্থার কারনে মনোনয়ন ফরম প্রত্যাহার করে নিয়েছি” তবে আমার নাম, ঠিকানা উল্লেখ করে কে বা কারা স্বার্থ হাসিলেন জন্য মামলাটি করেছেন আমার বোধগম্য নয়।

এদিকে নূর আহাম্মদ মামলার বিষয়ে কিছু জানেন না উল্লেখ করে বিআরডিবি দপ্তরের মাধ্যমে আদালতে লিখিত বক্তব্য পাঠিয়েছেন।

বান্দরবান বিআরডিবি অফিসার সুইক্রাচিং মারমা জানান, মামলায় উল্লেখিত বাদী গত ১৭ নভেম্বর নিজে হাজির হয়ে আদালতে দায়েরকৃত মামলার বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে লিখিত স্বীকারোক্তির দিয়েছেন।

এদিকে কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতির নির্বাচনে বিনা প্রতিদন্ধিতায় নির্বাচিত ৭ সদস্যের কমিটির নাম ঘোষনা করেছে বিআরডিবি। কমিটিতে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ ফোরকান, সহ সভাপতি মোঃ ইউনুছ এবং সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন- হ্লাফো চাক, কেমেরাউ তংচগ্যা, মোঃ দেলাওয়ার হোসাইন, হ্লাথোয়াংচিং চাকমা ও জুহুরা বেগম।

উল্লেখ্য, মামলায় এজাহারভুক্ত জনৈক কর্মকর্তা চকরিয়া উপজেলার এক ব্যক্তিকে ভূয়া বাদী সাজিয়ে মামলাটি করেছেন বলে এলকায় ছড়িয়ে পড়েছে।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology