মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৩৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
নাইক্ষ‍্যংছড়ি ১১বিজিবির ৪দিনের অভিযানে ৭০ লাখ  টাকার  বিদেশি গরু আটক শূন্যরেখায় ১৮৬ জন রোহিঙ্গাদেরকে কুতুপালং পার্শ্বে ট্রানজিট ক্যাম্পে হস্তান্তর  থানচিতে দুই নৌকা মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহত নাইক্ষ‍্যংছড়ি সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করলেন বিজিবির মহাপরিচালক   নাইক্ষ্যংছড়িতে খালের পানি শুকিয়ে এখন ধান চাষ হচ্ছে নাইক্ষ্যংছড়িতে বন্য হাতির আক্রমণে এক কৃষকের মৃত্যু র‌্যাবের অভিযানে দুই জঙ্গি গ্রেপ্তারের ঘটনায় নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় মামলা নাইক্ষ্যংছড়ি বাজারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় ২জনকে জরিমানা! পলিথিন জব্দ থানচিতে গণসংবর্ধনা পেল সংনং ম্রো রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে সামরিক শাখার প্রধান রনবীর ও বোমা বিশেষজ্ঞ বাশারকে অস্ত্রসহ আটক
নাইক্ষ্যংছড়িতে সিটিটিসির অভিযান অস্ত্র-গোলাবারুদসহ ৩ জঙ্গি আটক

নাইক্ষ্যংছড়িতে সিটিটিসির অভিযান অস্ত্র-গোলাবারুদসহ ৩ জঙ্গি আটক

নাইক্ষ্যংছড়ি পন্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ির দুর্গম এলাকা থেকে জামাআতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারকীয়া’র গ্রুপের (জঙ্গি)  কাছে প্রধান অস্ত্র সরবরাহকারী  ৩ সহযোগিকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিটিটিসি)। এ সময় তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ।

সোমবার ৯ জানুয়ারি সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিটিটিসি প্রধান মো. আসাদুজ্জামান।
তিনি জানান, বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ির দুর্গম পার্বত্য এলাকা হতে জামাআতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারকীয়া’র (জঙ্গি) গ্রুপকে  প্রধান অস্ত্র সরবরাহকারীসহ ৩ সহযোগিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ সময় বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়েছে।
সূত্র, গত ৭ জানুয়ারি আনুমানিক রাত ২টার দিকে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট ঢাকার একটি টিম কর্তৃক গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের বোমাংখিল এলাকা থেকে  নাদেরুজ্জামানের ছেলে কবীর আহমদ (৪৫) কে আটক করা হয়।
এদিকে আটককৃত কবীর আহমদের তথ্যমতে  গত ৮ জানুয়ারি রাত সাড়ে ৪টার দিকে  সিটিটিসি ঢাকার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: ইমরানের  নের্তৃত্বে একটি টীম নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের ছাগলখ্যাইয়ার ৮নং ওয়ার্ডস্থ আমিনুল ইসলামের রাবার বাগানে অভিযান চালিয়ে  অস্ত্রসহ গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়। এসময় আরও দুই জনকে আটক করা হয়। আটক কৃতরা হল  মোঃ আলম প্রকাশ আলইম্যা ডাকাত ও  নুরুল আবছার। এরা উভয়ে গর্জনিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা বলে জানা গেছে।
উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ সরমঞ্জামের মধ্যে ছিল- ৩টি দেশীয় পিস্তল, ৬টি একনলা বন্ধুক, ১০ রাউন্ড ৭.৬২ মিমি গুলি,৪ লিটার এসিড, ২৫০ গ্রাম  গান পাউডার, ৩ লিটার অকটেন, ২ কার্টুন ম্যাচ বক্স, ২ কয়েল বৈদ্যুতিক তার, ১ বোতল রাসায়নিক পদার্থ,১টি কেচি কাটা করাত, ১টি হ্যান্ড শ, ১টি কার ব্যাটারি,১৩.টি শার্ট ২০ পিস১৪.মাংকি টুপি ১২ পিস ১৫.সুপার গ্লু ১২ পিস মিনিপ্যাক ১৬.জালের কাঠি ১ প্যাকেট।
এলাকাবাসীরা উদ্ধারকৃত অস্ত্র,গোলাবারুদ ও বিস্ফোরকের সরমঞ্জামের খবর পাওয়ার পর আটককৃত ব্যাক্তিরা জঙ্গি গ্রুপের মদদদাতা হিসেবে সন্দেহ করছে।
সিটিটিসি প্রধান জানান, এই বিষয়ে আজ দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology