সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ০৫:৫৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাইশারীতে হোম কোয়ারেন্টেইনে থাকা পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত বাইশারীতে খেটে খাওয়া মানুষের ঘরে খাদ্যশস্য পৌছে দিলেন পার্বত্য মন্ত্রী ৫শ দিনমজুর ও শ্রমজীবীর পাশে রুমা ইউএনও  রোয়াংছড়িতে হতদরিদ্রদের মাঝে ১০ টাকা চাল বিতরণ নাইক্ষ্যংছড়িতে করোনা প্রতিরোধে বিজিবির সতর্কতামূলক প্রচার অব্যাহত রুমায় করোনাভাইরাস ঠেকাতে মাঠে নেমেছে: পাইন্দু চেয়ারম্যান ১৫ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ আলীকদম সেনা জোনের  প্রবীণ সাংবাদিক “চবাথুই মার্মা” মৃত্যুতে নাইক্ষ্যংছড়ি প্রেসক্লাবের শোক প্রকাশ নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে নজরদারি ও টহল জোরদার, বিদেশ ফেরত ৮ প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে করোনা প্রতিরোধে আলীকদম সেনাজোন ও উপজেলা প্রশাসনের সচেতনতামূলক প্রচারনা
নাইক্ষ্যংছড়ির এলেক্ষ্যং একটি সড়ক উন্নয়নে পাল্টে যাচ্ছে ১০ গ্রামের জীবনের-মান

নাইক্ষ্যংছড়ির এলেক্ষ্যং একটি সড়ক উন্নয়নে পাল্টে যাচ্ছে ১০ গ্রামের জীবনের-মান

আবদুর রশিদ, নাইক্ষ্যংছড়ি প্রতিনিধিঃ
নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের এলেক্ষ্যং মৌজার এক কিলোমিটারের একটি সড়ক উন্নয়নে পাল্টে যাচ্ছে ১০ গ্রামের জীবনের-মান। অবহেলিত এই সড়কটি উন্নয়ন হওয়ায় শিক্ষা-চিকিৎসা সহ দৈনন্দিন কাজের মানও বৃদ্ধি পেল। বিশেষ করে এ সড়কটির উন্নয়ন কাজ শুরু করায় ছাত্র-ছাত্রীসহ গ্রামের হাজারো মানুষের মুখের হাসি ফুটিয়েছে।

বাদুর ঝিরি চাক পাড়ার বাসিন্দা ম্রাচিং চাক, চড়ই মরুং পাড়ার বাসিন্দা লাংকংমুরুং, ফতই হেডম্যান পাড়ার হেড়ম্যান তমপ্রে মুরুং সহ অনেকে জানান, স্বাধীনতার ৪৮ বছর পেরিয়ে গেলেও সড়কটির উন্নয়নের আশা ছেড়ে দিয়েছিলো। মনে হতো এই সড়কটি আর কোন উন্নয়ন হবে না। এরই মধ্যে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান অধ্যাপক শফিউল্লাহর সু-নজর পড়ে এ অবহেরিত সড়কটি উন্নয়নের জন্য ৬২লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিতব্য সড়কটি কাজ শুরু করেন গত সপ্তাহে।

বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলম কোম্পানী বলেন, মন্ত্রী বীর বাহাদুরের বদন্যতায় উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক মো: শফিউল্লাহর চেষ্ঠায় এ সড়কটির কাজ শুরু হলো মাত্র। সড়কটির উন্নয়ন কাজ শেষ হতে হয়তো ১ মাস লাগতে পারে। এ এলাকার ১০ গ্রামের ২০-৩০ হাজার মানুষের চেহারা পাল্টে যাবে। জীবনের-মান পরিবর্তন হয়ে উচ্চ শিক্ষা অর্জন সহ সব ধরণের কাজে এগিয়ে যাবে। তিনি বলেন, সুবিধাভোগী গ্রাম গুলো হলো:পথৈ মুরুং পাড়া,বাদুর ঝিরি পাড়া,মংচালা চাক পাড়া, সাপঝিরি পাড়া, চাকমার ঝিরি পাড়া, লাম লাই মুরুং পাড়া, তুতুকখালী, চা তৈ পাড়া, বৈদ্য পাড়া ও মিরজিরি পাড়া । এসব গ্রাম এতো দিন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ছিল। এখন সরাসরি তাদের গ্রামে সহযে যাতায়াত করতে সুবিধা হলো। সব মিলে এ সড়কটি এখানকার মানুষের জন্যে আর্শিবাদ স্বরূপ।

তবে বাঁধা সৃষ্ঠি করতে কিছু চাঁদাবাজ তৎপর রয়েছে। বিভিন্নভাবে চাঁদাবাজরা কাজের গতি ব্যাহত করার চেষ্টা করছে। তিনি আশা প্রকাশ করেন তার এলাকায় উন্নয়নের ক্ষেত্রে কোন চাঁদাবাজ ঠাই পাবে না।

উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মো: সোহেল রানা বলেন, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের অর্থায়নে এ সড়কটি নির্মিত হচ্ছে। সড়কটির কাজ সবে মাত্র শুরু হয়েছে। শেষ হতে সময় লাগবে আরো বেশ’ক দিন। ৬২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে সড়কটি নির্মিত হচ্ছে। কাজের মান ঠিক রাখতে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রয়েছে। নিয়ম মেনেই বালু,ইট সংগ্রহ করেছেন। তার পরেও কাজের মানে অনিয়ম পাওয়া যায় তাহলে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে কোন ছাড় দেয়া হবে না।

উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো: শফিউল্লাহ শফিউল্লাহ বলেন, পাহাড়ে উন্নয়নের জন্য বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপির এর নির্দেশে সব কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। এ সড়কটিও তার একটি অংশ। এখানে অনিয়ম,দূর্নীতি কেউ করার সাহস করে না, করবেও না। আওয়ামী লীগ কাজ করে জনগনের ভাগ্য উন্নয়নের জন্যে। শিক্ষার জন্যে, দেশের জন্যে।  এলেক্ষ্যং সড়কটির উন্নয়ন হলে সড়কের অপর প্রান্তের ১০-১২ গ্রামের মানুষ নাগরিক সুবিধা পাবে।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology
error: Content is protected !!