শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বান্দরবানে গাড়ি থেকে পড়ে গাড়ি চাপায় নিহত হলো গৃহবধূ  বান্দরবানে অনুকূলচন্দ্র ঠাকুরের ১৩৪তম পালন বান্দরবানে পাহাড় ধ্বসে ২ জনের লাশ উদ্ধার, নিখোঁজ ১ টংকাবতী ইউপি ওয়েবসাইট হালনাগাদ করণে’র লক্ষ্যে জুমে মতবিনিময় নাংকু খুমির ৮ কেজি ওজেনর টিউমার সফলভাবে অপারেশন করলো ডাঃ সাবরিনা খাগড়াছড়িতে বাসদ নেতা টুটুলের লাশ উদ্ধার  বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ শিক্ষার্থীদেরকে ফুল ও স্যানিটাইজার দিয়ে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করল বান্দরবানে অবৈধ ভাবে পাহাড় কাটতে গিয়ে পাহাড় ধ্বসে আহত-১ বান্দরবান জর্দান পাড়া এলাকায় ট্রাক খাদে পড়ে ১জন নিহত থানচি বড়পাথরে গোসল করতে নেমে পর্যটক নিখোঁজ 
পুলিশ-সন্ত্রাসী গুলি বিনিময় গর্জনীয়া থেকে অপহৃত যুবক মুক্তিপন ছাড়াই উদ্ধার

পুলিশ-সন্ত্রাসী গুলি বিনিময় গর্জনীয়া থেকে অপহৃত যুবক মুক্তিপন ছাড়াই উদ্ধার

আব্দুর রশিদ, নাইক্ষ্যংছড়ি প্রতিনিধিঃ
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের গহীন পাহাড় সাপমারাঝিরি ত্রিষ্টার রাবার বাগান নামক স্থানে পুলিশ-সন্ত্রাসী গুলি বিনিময় হয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ইউনিয়নের সাপমারাঝিরি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঐ সময় সন্ত্রাসীরা গুলি ছুড়তে ছুড়তে পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে সন্ত্রাসীদের ফেলে যাওয়া অস্ত্র ও গোলাবারুদ তৈরীর সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

তাছাড়া গত সোমবার ভোররাতে রামু উপজেলার গর্জনীয়া থেকে অপহৃত জামাল হোসেনকে সন্ত্রাসীদের হাত থেকে অক্ষত অবস্থায় মুক্তিপন ছাড়াই উদ্ধার করেছে বলে বাইশারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ একেএম হাবিবুল ইসলাম জানান। তিনি জানান, অপহরন থেকে উদ্ধার হওয়া জামাল হোসেনকে গর্জনীয়া পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মোঃ আলমগীরের নিকট হস্থান্তর করা হয়েছে।

উদ্ধার হওয়া যুবক জামাল হোসেন জানান, তাকে অপহরনের পর থেকে মুক্তিপনের জন্য মারধর করে আসছিল এবং অপহরনকারীরা তাকে সবসময় চোখ বাধা অবস্থায় রাখত। তাছাড়া অপহরনকারীরা পাহাড়ে বিভিন্ন সময় স্থান বদলও করে।

পুলিশ জানায়, বুধবার সকাল ১০টার দিকে রাবার বাগানে কাজ করতে যাওয়া শ্রমিকেরা সন্ত্রাসীদের গহীন পাহাড়ে দেখতে পেয়ে তাৎক্ষনিক বাইশারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জকে ঘটনাটি মোবাইল ফোনে জানালে সাথে সাথে এসআই বেলাল, এ এসআই রুবেল, এ এসআই মোজাম্মেল হকের এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ গহীন পাহাড়ে পৌছে সন্ত্রাসীদের ঘেরাও করে ফেলে। ঐ সময় সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়ে। প্রায় আধা ঘন্টা সন্ত্রাসী এবং পুলিশের মাঝে গুলি বিনিময় হয়। পুলিশের সাহসী অভিযানে সন্ত্রাসীরা পিছু হটতে বাধ্য হয়।

অভিযানে নেতৃত্বদানকারী এসআই মোঃ বেলাল জানান, সন্ত্রাসীদের সাথে গুলি বিনিময়ের এক পর্যায়ে তারা পাল্টা গুলি ছুড়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলটি গহীন পাহাড় ও জঙ্গলাকীর্ণ হওয়ায় সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। ঘটনাস্থল থেকে তল্লাসী চালিয়ে ডাকাত সদস্যদের ফেলে যাওয়া অস্ত্র ও গোলাবারুদ তৈরীর সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। তাছাড়া রামু উপজেলার গর্জনীয়া থেকে অপহৃত জামাল হোসেনকে সন্ত্রাসীদের হাত থেকে অক্ষত অবস্থায় মুক্তিপন ছাড়াই উদ্ধার করা হয়। তিনি আরো জানান, সন্ত্রাসীদের ধরতে বাইশারী পুলিশের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে আনাইয়্যা বাহিনীর প্রধান সহযোগী মোঃ আনোয়ার বলি বাইশারীর গহীন পাহাড়ে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হলেও আনোয়ার বাহিনীর প্রধান আনোয়ার রয়েছে বহাল তবিয়তে। তাকে ও তার সহযোগীদের খতম না করা পর্যন্ত এলাকায় অপহরণ, খুন, গুম, ডাকাতি, চাদাবাজি, মুক্তিপন বানিজ্য বন্ধ হবে না বলে স্থানীয়দের অভিমত। তাই বান্দরবান জেলা পুলিশ ও কক্সবাজার জেলা পুলিশের সমন্বয়ে যৌথ অভিযানের মাধ্যমে আনাইয়্যা বাহিনীকে খতম সম্ভব হবে বলে এলাকাবাসীরা জানান।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology