শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:১৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
লামায় দুর্গম এলাকায় এক বাঁশ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধারে যৌথবাহিনী থানচিতে স্বাভাবিক প্রসূতি সেবা নিশ্চিৎ করতে অবহিতকরন কর্মশালা   রোয়াংছড়ি শুকনাছড়ি পাড়ায় বন সংরক্ষণ সমিতির ২য় বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত বাইশারীতে পূজামণ্ডপ,পরিক্ষা কেন্দ্র ও বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করলেন ইউএনও সালমা  বান্দরবানের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিলো বান্দরবান জোন পার্বত্য অঞ্চলে সর্বভৌমত্ব আইন শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য ৩টি  আর্ম পুলিশ ব্যাটালিয়ান স্থাপন- আইজিপি প্রাণির স্বাস্থ্য সনদ জাল করে গরু চোরাচালান! আলীকদমে ইউনুচের বিরুদ্ধে প্রতারণা মামলা বান্দরবানে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ চট্টগ্রামের বৈদ্য আটক বান্দরবানে ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে হত্যার দায়ে ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড পাহাড়ে মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রী খুবই আন্তরিক -পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর
প্রকৃতির রুপের রানী সবুজ বনায়ন গড়ে তুলতে রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশের বৃক্ষরোপন কর্মসুচি

প্রকৃতির রুপের রানী সবুজ বনায়ন গড়ে তুলতে রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশের বৃক্ষরোপন কর্মসুচি

শেখ ইমতিয়াজ কামাল ইমন,রাঙ্গামটি প্রতিনিধিঃ
জনগণের নিরাপত্তা বিধানে রাষ্ট্র কর্তৃক অর্পিত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি এবার পাহাড়ী এলাকায় নিজেদের কর্মস্থলকে সবুজায়নে এগিয়ে এলো রাঙামাটির পুলিশ বিভাগের কর্মকর্তাগণ।

এরিই ধারাবাহিকতায় জেলার বিভিন্ন থানাগুলোর ন্যায় আজ মঙ্গলবার রাঙামাটির কোতয়ালী থানার ৯০শতক জায়গাজুড়ে নানান প্রজাতির ঔষধী-বনজ ও ফলজ গাছের চারা রোপন করা হয়েছে।

জেলা পুলিশের সহকারি পুলিশ সুপার মোঃ তারেকুল ইসলাম ও কোতয়ালী থানা অফিসার ইনচার্জ সত্যজিত বড়ুয়া এই সবুজায়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন, এসময় সদর থানার কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

সত্যজিৎ বড়ুয়া জানিয়েছেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হওয়া ত্রিশ লক্ষ শহীদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণানুসারে আমাদের পুলিশ সুপার আলমগীর কবির মহোদয়ের নির্দেশনায় আমরা এই কর্মসূচী পালন করছি।

এসপির সার্বিক নির্দেশনায় জেলার থানাগুলোসহ পুলিশের বিভিন্ন স্থাপনাগুলোর চারপাশে গাছের চারা রোপন কর্মসূচী অব্যাহত রয়েছে। এরই আলোকে মঙ্গলবার সকালে আমরা কোতয়ালী থানার ৯০ শতক জায়গাজুড়েই বৃক্ষরোপন কর্মসূচী শুরু করেছি। থানা কম্পাউন্ডের চারপাশে ২ হাজার গাছের চারা প্রাথমিক পর্যায়ে রোপন করা হয়েছে উল্লেখ করে পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান।

তাই প্রকৃতির প্রতি দায়বদ্ধতা থেকেও আমাদের সকলের উচিত প্রচুর পরিমানে গাছ লাগানো। এতে করে আমাদের আগামী প্রজন্মের জন্যে একটি সুন্দর নির্মল বায়ুময় পরিবেশ বেষ্টিত দেশ আমরা গড়ে তুলতে পারবো।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology