মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১১:২১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
লামায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে দুর্যোগে ঝুঁকি হ্রাস ও নিরাপত্তা প্রশিক্ষণ আ.লীগের নেতা হত্যার প্রতিবাদে রুমায় বিক্ষোভ কোটি টাকার ইয়াবাসহ নাইক্ষ্যংছড়ির দুই মাদক পাচারকারী আটক নাইক্ষ্যংছড়ির এলেক্ষ্যং একটি সড়ক উন্নয়নে পাল্টে যাচ্ছে ১০ গ্রামের জীবনের-মান হত্যার তালিকায় রয়েছে আওয়ামীলীগ নেতা বাচনু মারমা- বিক্ষোভ সমাবেশে বান্দরবান জামছড়িতে গুলিতে আওয়ামীলীগ নেতা নিহত, আহত ৫ থানচিতে ভাষা শহীদদের বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন ভাষা শহীদদের স্মরণে রাঙ্গামাটিতে শহীদ মিনারে গুর্খা সম্প্রদায়ের বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্চলি পরকীয়া সন্দেহে এক নারীকে পিটিয়ে হত্যা। আটক-১ রোয়াংছড়িতে প্রায় সাড়ে ৮ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করলেন পার্বত্য মন্ত্রী
বান্দরবানে বই উৎসবে নতুন বই পেয়ে খুশি শিশুরা

বান্দরবানে বই উৎসবে নতুন বই পেয়ে খুশি শিশুরা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
আজ সারা দেশের ন্যায় বান্দরবানে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা নতুন বই পেলো। এসময় শিশুরা নতুন বছরে নতুন বই পেয়ে অনুষ্ঠানটি আনন্দ মুখর পরিবেশে সৃষ্টি হয়েছে। বান্দরবানে বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থী, শিক্ষক ,অভিভাবক ও সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আজ ১লা জানুয়ারী বুধবার সকালে বান্দরবান ঐতিহ্যবাহি রাজার মাঠে এই বই উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈ হ্লা। আয়োজন করেছে, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগ, মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগ ও পার্বত্য জেলা পরিষদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মোঃ রোজাউল করিম, লেফটেন্যান্ট কর্নেল, অধক্ষ্য বান্দরবান ক্যান্টেমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ, শামীম হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, কামরুজ্জামান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সোমা রানী বড়–য়া, জেলা শিক্ষা অফিসার ও সিদ্দিকুর রহমান, সহকারি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন সোঁনার বাংলাদেশ গড়তে হলে, সুশিক্ষার হার বাড়াতে হবে। সরকার বদলায়, প্রধানমন্ত্রী বদলায় কোন দিনতো শিক্ষার মান বাড়েনি এবং শিক্ষার মান উন্নয়নের ক্ষেত্রেও এগিয়ে আসেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার এসেই শিক্ষার মান বাড়িয়ে দিয়েছে। ১লা জানুয়ারি হলেই শিক্ষার্থীদের হাতে বই পৌছে দিচ্ছি, শুধু তাই নয় মিডডে চালু করা হয়েছে। উপবৃত্তি প্রদান করা হচ্ছে। পাহাড়ে নৃ-জনগোষ্ঠীদের মাতৃভাষা বই চালু করা হয়েছে। বান্দরবান জেলায় ২০১৮-১৯ সালে আশানুরুপ প্রাথমিকের পাশের হার ভালো হয়নি। জিপিএ সংখ্যাও কম। এত কিছু সুযোগ দেয়ার পরও কেন এমন হলো জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের কাছে জানতে চান।

শেষে বলেন, দেখা গেছে শহরে কয়েকটি স্কুলে ৮/৯ জন শিক্ষক ডিপোটিশন নিয়ে বসে আছে। অতিরিক্ত শিক্ষক থাকার কারন কি? এখন দেখি শিক্ষকদের গ্রুপিং শুরু হয়েছে। শিক্ষকদের নানান অভিযোগ, এত সব অভিযোগ হলে ছাত্রদের পরাবেন কবে? শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

বান্দরবান সদরে ৭৮৫৫০, রুমা ১৬৮৮৮, রোয়াংছড়ি ২৪৮০৩, থানচি ২২৯৮৮, লামা ১১৫৩২৮, নাইক্ষ্যংছড়ি ৬২৬৫০, আলীকদম ৪৮৮০০ মোট ৩৭১০০৭ বই বিতরণ করা হয়।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology
error: Content is protected !!