মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:০৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
পার্বত্য অঞ্চলে সর্বভৌমত্ব আইন শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য ৩টি  আর্ম পুলিশ ব্যাটালিয়ান স্থাপন- আইজিপি প্রাণির স্বাস্থ্য সনদ জাল করে গরু চোরাচালান! আলীকদমে ইউনুচের বিরুদ্ধে প্রতারণা মামলা বান্দরবানে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ চট্টগ্রামের বৈদ্য আটক বান্দরবানে ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে হত্যার দায়ে ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড পাহাড়ে মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রী খুবই আন্তরিক -পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর তুমব্রু সীমান্তে বসবাসরত পরিবারগুলোকে নিরাপদ স্থানে সরাতে জেলা প্রশাসকের পরিদর্শন লামায় ঢুকতে পারেনি সিএইচটি কমিশনের একটি দল নাইক্ষ্যংছড়ি তমব্রু সীমান্তে গরু আনতে গিয়ে মাইন বিস্ফোরণে পা হারাল এক যুবকের সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে থানচিতে ব্যাপক প্রচারণা চালাবে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর নাইক্ষ্যংছড়ি আলী মিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের খেলার মাঠটি দ্রুত সংষ্কারের দাবি!
বান্দরবানে ৯ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিলেন

বান্দরবানে ৯ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিলেন

রিমন পালিত,ষ্টাফ রির্পোটারঃ
মনোনয়ন পত্র জমা দানের শেষ দিনে বান্দরবান ৩০০ নং সংসদীয় আসনে মোট ৯ প্রার্থী তাদের মনোনয়ন রিটানিং অফিসারের কাছে জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের ১ জন বিএনপির ৩ জন, ইসলামী আন্দোলনের ১ জন, ইসলামী ঐক্যজোটের ১ জন ও স্বতন্ত্র ৩ প্রার্থী রয়েছেন। যারা মনোনয়ন জমা দিলেন তারা হলেন, আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং, বিএনপির মনোনিত প্রার্থী ও কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সাচিং প্রæ জেরী, জেলা বিএনপির সভাপতি মাম্যাচিং, মহিলা দলের নেত্রী উম্মে কুলসুম সুলতানা লীনা, ইসলামী ঐক্যজোটের প্রার্থী মোঃ বাবুল হোসেন, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মাওলানা মুফতি শওকতুল ইসলাম, স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক লক্ষি পদ দাস, সার্ক মানবাধিকার সংগঠনের জেলা সভানেত্রী ডনাই প্রæ নেলী ও কুকি চীন ন্যাশনাল ডেভোলপমেন্ট অর্গানাইজেশন এর সাবেক সভাপতি ও বম সম্প্রদায়ের নেতা নাথান বম।

বুধবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত প্রার্থীরা তাদের সমর্থিত নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে রিটানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক দাউদুল ইসলামের কাছে তাদের মনোনয়ন পত্রগুলো জমা দেন। বিএনপির সাচিং প্রæ জেরীকে তাদের প্রার্থী ঘোষনা করলেও মনোনয়ন পত্র জমাদানের শেষ দিনে হঠাৎ করেই জেলা বিএনপির সভাপতি মাম্যাচিং মনোনয়ন জমা দেয়ায় বিএনপির জেরী সমর্থিত নেতা কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে। মাম্যাচিংকে দলীয় ভাবে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

এ বিষয়ে মাম্যাচিং বলেন, দলীয় নির্দেশেই মনোনয়ন জমা দেয়া হয়েছে। দল যদি মনে করে নির্বাচন করার তবে আমি প্রস্তুত রয়েছি। যদি কোন কাউকে মনোনয়ন দেয় তবে সে ক্ষেত্রে আমরা ঐ প্রার্থীর পক্ষেই কাজ করব। এখানে ভুলবুঝাবুঝি বা উত্তেজনার কিছু নেই। অন্যদিকে আওয়ামী লীগ থেকে বীর বাহাদুরকে মনোনয়ন দেয়া হলেও কৌশলগত কারনে দলের যুগ্ন সম্পাদক লক্ষি পদ দাশ শেষ সময়ে স্বতন্ত্র হিসেবে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।

মনোনয়ন জমা দিয়ে বীর বাহাদুর সাংবাদিকদের বলেন, বান্দরবানের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, অবকাঠামো, যোগাযোগ, আর্থসামাজি অবস্থার উন্নয়নসহ বিভিন্ন সেক্টরে আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। যে অসমাপ্ত কাজগুলো রয়েছে পুনরায় নির্বাচিত হলে এসব কাজ সমাপ্ত করে এলাকার উন্নয়নের গতিধারাকে আরো তরান্বিত করার অঙ্গিকার করেন বীর বাহাদুর।

অন্যদিকে বিএনপির প্রার্থী সাচিং প্রæ জেরী বলেন, নির্বাচিত হলে বান্দরবানের যে সাম্প্রদায়িক ঐক্য সম্প্রীতি রয়েছে তা বজায় রেখে উন্নয়ন করা হবে। সেই সাথে দলের চেয়ারপারসনকে মুক্ত করার জন্য নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করার এই সংগ্রাম।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology