শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:১১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
লামায় দুর্গম এলাকায় এক বাঁশ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধারে যৌথবাহিনী থানচিতে স্বাভাবিক প্রসূতি সেবা নিশ্চিৎ করতে অবহিতকরন কর্মশালা   রোয়াংছড়ি শুকনাছড়ি পাড়ায় বন সংরক্ষণ সমিতির ২য় বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত বাইশারীতে পূজামণ্ডপ,পরিক্ষা কেন্দ্র ও বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করলেন ইউএনও সালমা  বান্দরবানের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিলো বান্দরবান জোন পার্বত্য অঞ্চলে সর্বভৌমত্ব আইন শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য ৩টি  আর্ম পুলিশ ব্যাটালিয়ান স্থাপন- আইজিপি প্রাণির স্বাস্থ্য সনদ জাল করে গরু চোরাচালান! আলীকদমে ইউনুচের বিরুদ্ধে প্রতারণা মামলা বান্দরবানে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ চট্টগ্রামের বৈদ্য আটক বান্দরবানে ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে হত্যার দায়ে ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড পাহাড়ে মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রী খুবই আন্তরিক -পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর
বান্দরবান বোমাং সার্কেলে ১৪১তম খাজনা আদয় হলো

বান্দরবান বোমাং সার্কেলে ১৪১তম খাজনা আদয় হলো

রিমন পালিত: স্টাফ রিপোর্টারঃ
বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে পার্বত্য জেলা বান্দরবানে বোমাং সার্কেলে শুরু হয়েছে সামাজিক এবং ঐতিহ্যবাহি জুমিয়া খাজনা আদায়ের অন্যতম উৎসব রাজপূন্যাহ।

আজ শুক্রবার দুপুরে এ উপলক্ষ্যে একটি শোভাযাত্রা বোমাং রাজার বাসভবন থেকে শুরু হয়ে পুরাতন রাজার মাঠ দরবার হলের সামনে অনুষ্ঠানস্থলে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় অংশ নেন রাজকর্মচারী,পাইক পেয়াদা, দুরদুরান্ত থেকে আসা বিভিন্ন সম্প্রদায়ের প্রজাসাধারণ ছাড়াও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গরা।

১৪১ তম এই রাজপূন্যাহ অনুষ্ঠানে বোমাং রাজা উচ প্রু চৌধুরী ছাড়াও এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কৃষিমন্ত্রী ড: আব্দুর রাজ্জাক। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সেনাবাহিনীর ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খন্দকার মো: শাহিদুল এমরান,(এএফডব্লউসি,পিএসসি), জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ দাউদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার,রাজকুমার চহ্লাপ্রু জিমি,রাজকুমার চসিংপ্রু বনি এবং দেশ-বিদেশ থেকে আগত অতিথিরা। এছাড়াও এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন জেলার ১০৯ টি মৌজার হেডম্যান এবং কারবারীরা।

ঐতিহ্যবাহী এই রাজস্ব খাজনা আদায় অনুষ্ঠানে ১১টি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্টি সম্প্রদায়ের ১০৯টি মৌজার ১০৯ জন হেডম্যান , ১ হাজার ৫ শ জন কারবারী (গ্রামপ্রধান) নিজ নিজ মৌজার পক্ষ থেকে আদায়কৃত রাজস্ব রাজাকে প্রদান করে। বোমাং সার্কেল ১৮৭৫ সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে ঐতিহ্যবাহী এই রাজপূণ্যাহর আয়োজন করে আসছে।

এদিকে ঐতিহ্যবাহী খাজনা আদায় অনুষ্ঠান রাজপূণ্যাহকে ঘিরে প্রতিবছর বান্দরবানের রাজারমাঠে কয়েকদিনব্যাপী মেলা বসলে ও এবছর উপজেলা নির্বাচনের কারণে মেলা বসার অনুমতি দেয়নি প্রশাসনের সূত্রে জানা গেছে।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology