রবিবার, ০৭ Jun ২০২০, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
১৫জুন পর্যন্ত বান্দরবানে হোটেল,মোটেল ও রিসোর্ট খোলা থাকবে রাঙ্গামাটিতে কিস্তি আদায়ে ঋণ গ্রাহককে চাপ প্রয়োগ করোনায় ১৮ চিকিৎসকের মৃত্যু বাংলাদেশ- মিয়ানমার সীমান্তে গুলিবর্ষণ,  বিজিবির সর্তকতা জোরদার ফারুক পাড়া ও লাইমি পাড়ায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছে সেনাবাহিনী সংবাদ প্রকাশের পর প্রশাসন বাইশারীর বাজার স্থানান্তর! ব্যবসায়ীদের মাঝে স্বস্তি  আলীকদমে যৌথ বাহিনীর অভিযানে অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার নাইক্ষ্যংছড়িতে করোনায় করণীয় বিষয়ক মতবিনিময় সভা  রাঙ্গামাটিতে ঝুঁকিপূর্ণ স্থানগুলোকে চিহ্নিত করে জেলা প্রশাসকের সাইনবোর্ড উখিয়ায় জানাযা পড়া অবস্থায় মুসল্লীর মৃত্যু  
বিশ্ব ভালোবাসা দিবস বরন করতে প্রস্তুত রাঙ্গামাটির ফুলের দোকানীরা

বিশ্ব ভালোবাসা দিবস বরন করতে প্রস্তুত রাঙ্গামাটির ফুলের দোকানীরা

শেখ ইমতিয়াজ কামাল ইমন, রাঙ্গামাটি প্রতিনিধিঃ
সৌন্দর্যের প্রতীক ফুল। আর এই ফুলকে ভালোবাসে না এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া খুবইকঠিন। ভালোবাসা ভালোলাগার সঙ্গে ‘ফুল নামক উপকরণটা অঙ্গাঙ্গীভাবেই জড়িত। “বিশ্ব ভালোবাসা দিবস”বা “ভ্যালেন্টাইন ডে” সারাবিশ্বের কোটি কোটি প্রেমিক তরুন-তরুনীদের জন্য পরম আকাঙ্ক্ষিত একটি দিন।

ভালোবাসা দিবসকে রাঙাতে কতোই না আয়োজনের কথা ভাবেন তরুন-তরুনীরা। যার মূল অনুসঙ্গ রঙ-বেরঙের ফুল। তাই এই ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে কয়েকগুন বেড়ে যায় ফুলের চাহিদা।

১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসকে সামনে রেখে পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটি পিছিয়ে নেয়। সারা দেশের মত রাঙ্গামাটির ফুলের দোকান এবং দোকানের বাহিরেও ফুলের পসরা সাজিয়ে বসেছেন অনেকেই। বিশ্ব ভালোবাসা দিবসকে উপলক্ষে মাত্র একদিনের জন্য ফুলের পসরা। ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে যেহেতু বেড়ে যায় ফুলের চাহিদা তাই এই চাহিদাকে কাজে লাগিয়ে ফুলের দাম কিছুটা বাড়িয়ে দেন বিক্রেতারা। ফুলপ্রেমী সব বয়সের মানুষেই ভিড় করছেন এসব দোকানে। দূর দুরান্ত থেকে ফুল কিনে মজুদ করে রেখেছে ফুল ব্যবসায়ীরা।দোকানগুলোতে মূলত গোলাপের চাহিদা থাকলেও গোলাপের পাশাপাশি বিক্রি হচ্ছে গাঁদা, রজনীগন্ধা, জিপসি, চেরি, গ্লাডিওলাস।

জেলার উন্নয়ন বোর্ড সংলগ্ন ফুল বিক্রেতা মোজ্জাফর আহমেদ বলেন,  কাল বিশ্ব ভালবাসা দিবস আর আমরা যারা ফুল ব্রিক্রেতা আছি প্রতিবছর এই দিনটির জন্য অপেক্ষা করে থাকি । এই দিনটিতে আমাদের ফুলের চাহিদা অনেক । যার জন্য আমরা প্রচুর পরিমান ফুল মজুদ রেখেছি।

আমার আশা সকলের চাহিদা মিটিয়ে প্রতিবছরের ন্যায় এই বছরও আমি প্রায় লক্ষাধিক টাকার ফুল বিক্রি করতে পারবো বলে তিনি মনে করেন।

 

 

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯)

করোনা ভাইরাস তথ্য