রবিবার, ১৩ Jun ২০২১, ০৪:৫২ অপরাহ্ন

রাঙ্গামাটিতে ঝুঁকিপূর্ণ স্থানগুলোকে চিহ্নিত করে জেলা প্রশাসকের সাইনবোর্ড

রাঙ্গামাটিতে ঝুঁকিপূর্ণ স্থানগুলোকে চিহ্নিত করে জেলা প্রশাসকের সাইনবোর্ড

রাঙ্গামাটি সংবাদদাতাঃ
পাহাড়ি এলাকা রাঙ্গামাটিতে বৃষ্টি হলেই জনমনে বিরাজ করে পাহাড় ধ্বসের ভয়ভীতি। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির পাশাপাশি পাহাড় ধ্বস নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মামুনুর রসিদ।
৪ জুন ২০ইং দুপুর নাগাদ রাঙ্গামাটি জেলার ঝুঁকি পূর্ণ পাহাড়ের বিভিন্ন স্থানে বসানো হলো সতর্কতা মূলক সাইনবোর্ড,পাশাপাশি জনসচেতনতার সৃষ্টির লক্ষ্যে,জেলা প্রশাসক মামুনুর রসিদ নিজ হাতে লিফলেট বিতরণ করেন।গত কয়েক বছরে পাহাড় ধ্বসে এই রাঙ্গামাটিতে হারাতে হয়েছে অসংখ্য মানুষকে,তাই বৃষ্টির শুরুতেই আগামভাবে সতর্কতা অবলম্বনে জেলা ও উপজেলা প্রসাশনের তড়িঘড়ি চলছে প্রচার প্রচারনা।
এই বিষয়ে রাঙ্গামাটি জেলা প্রসাশক মো:মামুনুর রসিদ মুঠোফোনে”টাইমস অফ রাঙ্গামাটি”কে জানিয়েছেন,আমরা রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আগামভাবে কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের পাশাপাশি পাহাড়ের ঢালে ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে বসবাসরত লোকজনকে সরে আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছি,তাছাড়া রাঙ্গামাটি জেলার সকল স্কুল/কলেজ কে প্রশাসনিক ভাবে আশ্রয়স্থল হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে,জেলার ভেদভেদী,শিমুলতলি,বাংলাদেশ টেলিভিশন কেন্দ্রের আশেপাশের পাহাড়ের ঢাল সহ বিশটি স্থানেকে ঝুঁকিপূর্ণ মাদারপয়েন্ট দেখিয়ে সাইনবোর্ড বসানো হয়েছে।
তিনি আরো বলেন,রাঙ্গামাটিতে সামান্য বৃষ্টি হলেই সবার মধ‍্যে পাহাড় ধ্বসের আতংক বিরাজ করে,তাই এই বছরে করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধের পাশাপাশি জনসচেতনতা মুলক ফেইসবুক পেইজ,অনলাইন পত্রিকা সহ মাকিং করে যাওয়া হচ্ছে,তবে করোনা পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে,গত বছরগুলোর তুলনায় এবছরে বেশি পরিমানে আশ্রয়কেন্দ্র খোলা রাখা হয়েছে।
আজ সকাল থেকেই রাঙ্গামাটি জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন স্থানে হালাকা ও মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হচ্ছে।চট্টগ্রাম আবহওয়া অফিসের কর্তব্যরত আফিসার আব্দুল হান্নান সাহেব “টাইমস অফ রাঙ্গামাটি”কে মুঠোফোনে জানিয়েছেন,বর্তমানে নদী বন্দরকে এক নম্বর সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে,তবে আরো দুইদিন যাবত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।পাহাড়ি ঢালের বসবাসরত বিশেষকরে রাঙ্গামাটি,খাগড়াছড়ি,বান্দরবানের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার আশেপাশের লোকজনকে, নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology