বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:২৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কেশবপুরে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বাস চালকসহ ৪ ব্যক্তিকে জরিমানা বাইশারী যুবলীগের নবনির্বাচিত সভাপতি ও সম্পাদককে সংবর্ধনা দিলেন পেঠান আলী পাড়া জামে মসজিদ নাইক্ষ্যংছড়ির বাইশারীতে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে একজনের মৃত্যু লামায় ১ম দিনে কোভিড-১৯ ফাইজার টিকা পেল ১৯৯৮ শিক্ষার্থী নিরাপদ সন্তান প্রসবের আপন ঠিকানা রুপসী পাড়া স্বাস্থ্য ও পরিবার কেন্দ্র ১৩ জানুয়ারি বান্দরবানে কঠোর বিধিনিষেধ- জরুরি বৈঠকে জেলা প্রশাসক নাইক্ষ্যংছড়িতে ৬ হাজার পিস ইয়াবাসহ ১জনকে আটক করেছে পুলিশ ওমিক্রন ঠেকাতে ১১ দফা বিধিনিষেধ ১৩ জানুয়ারি থেকে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে গণপরিবহন চলবে বান্দরবানে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
রাজ পুণ্যাহ মেলায় সমন্নয়ের কিছু না কিছু শ্লিপ হয়েছে-বীর বাহাদুর

রাজ পুণ্যাহ মেলায় সমন্নয়ের কিছু না কিছু শ্লিপ হয়েছে-বীর বাহাদুর

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
১৪১তম রাজ পুণ্যাহ উপলক্ষে দ্বিতীয় দিনে হেডম্যান ও কারবারীরা মিলে একটি উষ্ণ সংবর্ধনা দেয়া হয় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি কে। অরুণ সার্কি টাউন হলে এই সংবর্ধনাটি অনুষ্ঠিত হয়।

আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১১ঘটিকার সময় অরুণ সার্কি টাউন হলে হেডম্যান এসোসিয়েশনের আয়োজনে উষ্ণ সংবর্ধনা দেয়া হয়। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ব্রিগ্রেডিয়ার জেনারেল খন্দকার মোঃ শাহিদুল এমরান,এ,এফ,ডব্লিউ, সি-সিএসসি, রিজিয়ন কমান্ডার, ৬৯ পদাতিক বান্দরবান পার্বত্য জেলা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শফিউল আলম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ লা মং।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতি বোমাংগ্রী উচপ্রু চৌধুরী বলেন, ১৮৭৫ সালে রাজস্ব খাজনা আদায়ের মধ্যে দিয়ে রাজ পুণ্যাহ যাত্রা শুরু হয়। মাঝ খানে কয়েক বছর বন্ধ থাকলেও ২০১৯ সাল অবধি চলমান রয়েছে। তবে এবারে ১৪১তম রাজ পুণ্যাহ কিছুতা ব্যতিক্রমি হয়েছে। রাজ পুণ্যাহ একদিন আগে মেলা হবে না বলে মেলার স্টল গুলো ভাঙ্গতে বলে । প্রশাসন বলছে নিরাপত্তা ও উপজেলা নির্বাচনের কারনে অনুমতি দেয়া যাচ্ছে না। এবার মেলায় অনুমতি না দেয়ায় খুব কষ্ট লাগলো। আমি খুব অপমান বোধ করেছি। এই প্রথম আমার মেলায় বাধা হলো। বড়দের  শ্রদ্ধা করলে নিজের শ্রদ্ধা ও গুণ বাড়ে।

প্রধান অতিথি পার্বত্য মন্ত্রী উশৈসিং এমপি বলেন, রাজার দীর্ঘায়ু কামনা করেন। হেডম্যান ও রাজা আমার শ্রদ্ধাভাজন। বাংলাদেশে উন্নয়নের একটি অংশ এই পার্বত্য অঞ্চল। পাহাড় উন্নয়নের মৌজার প্রধান হেডম্যানদের গুরুক্ত রয়েছে। মেলা চাইনা এমন লোক নেই। যতটুকু পারি রাজ পুণ্যাহ মেলাগুলোতে সাহায্য করে আসছি। দীর্ঘ  দিনের ধর্মীয় একটি অনুষ্ঠানের আমন্ত্রন ছিল বিধায় রাজ পুণ্যাহ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারিনি।

তিনি আরো বলেন, এবার মেলা না হলেও পরের বছরে ভালো একটি রাজ পুণ্যাহ মেলা হবে আশা করছি। রাজ পুণ্যাহ মেলায় সমন্নয়ের কিছু না কিছু শ্লিপ হয়েছে বলে আমি মনে করছি।

হেডম্যানদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাদের মৌজায় ভালো মন্ড খোজ রাখুন। কোথায় কি হচ্ছে জানুন। কত জন স্কুল কলেজ পড়ুয়া আছে খবর নেন।  প্রজাদের খবর নিলে, প্রজারা ও আপনাদের খবর রাখবে।  পার্বত্য অঞ্চলে হেডম্যানদের সমস্যা থাকতে পারে সমস্যাগুলো উত্থাপন করুন, সমাধান করার চেষ্টা করবো।

সংবর্ধনা শেষে মন্ত্রী বোমাং সার্কেলে হেডম্যান এসোসিয়েশনকে দুইটি কম্পিউটার, একটি প্রিন্টার এবং বোমাং রাজাকে দুই লাখ টাকা প্রদান করা হয়।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology