বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন

রুমায় শীতের মৌসুমে ভাঁপা পিঠায় জনপ্রিয়তা বেড়েছে

রুমায় শীতের মৌসুমে ভাঁপা পিঠায় জনপ্রিয়তা বেড়েছে

মংহাইথুই মারমা,রুমা প্রতিনিধি:
বান্দরবানে রুমা সদর এলাকার হাটবাজার হলেই শীতের মৌসুমে পাহাড়ে গ্রামগঞ্জে থেকে আসা পাহাড়ি মানুষের কাছে ভাঁপা পিঠা মানে জনপ্রিয়তা হয়ে উঠেছে। তাই পাহাড়ি-বাঙ্গালী ভাঁপা পিঠা দেখা আর খাওয়া দুনোটা  আগ্রহ বেড়েছে।

আজ সোমবার হাটবাজারে নানান শ্রেণি পেশা মানুষের মুখে মুখে দেখা গেছে ভাঁপা পিঠা। এটি বাংলাদেশের একটি ঐতিহ্যবাহী পিঠা যা প্রধানত শীত মৌসুমে প্রস্তুত ও খাওয়া হয়। প্রধানত চালের গুঁড়া দিয়ে জলীয় বাষ্পের আঁচে তৈরী করা হয়। মিষ্টি করার জন্য দেয়া হয় গুড়। স্বাদ বৃদ্ধির জন্য নারকেলের শাঁস দেয়া হয়। ঐতিহ্যগতভাবে এটি একটি গ্রামীণ নাশতা হলেও একুশ শতকের শেষভাগে প্রধানত শহরে আসা গ্রামীণ মানুষদের খাদ্য হিসাবে এটি শহরে বহুল প্রচলিত হয়েছে। রাস্তাঘাটে এমনকী রেস্তারাঁতে আজকাল ভাঁপা পিঠা পাওয়া যায়।

এলাকার মানুষের কাছে পিঠার বিষয়ে জানতে চাইলে তারা বলেন, শীতের মৌসুমে ভাঁপা পিঠা খেতে খুবই মজা লাগে। শীত হওয়া মানি বিভিন্ন ধরনের পিঠা খাওয়া হয়। তার মধ্যে ভাঁপা পিতা অন্যতম। তাই মানুষের মধ্যে জনপ্রিয়তা বেড়ে উঠেছে।

এ বিষয়ে পিঠার দোকানদারে কাছে আলাপ করা হলে তিনি জানান, শীত আসা মানে আর্থিকভাবে কিছু লাভবান হওয়া। যা পিঠা বানিয়ে রোজগার ও আয় করে পরিবারের পর্যাপ্ত পরিমানে সংসার চালানো সম্ভব হয়। একটা ভাঁপা পিঠার দাম পাঁচ টাকা। হাটবাজার হলে ৫-৮শত বেশি পিঠা বিক্রি করে ২-৩  হাজার টাকা বেশি রোজগার করা সম্ভব হয়।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology