বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৪৫ অপরাহ্ন

স্বাধীনতা সরকারি চাকরিজীবি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ, বান্দরবান জেলা শাখা অভিষেক ও সমাবেশ

স্বাধীনতা সরকারি চাকরিজীবি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ, বান্দরবান জেলা শাখা অভিষেক ও সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
স্বাধীনতা সরকারি চাকরিজীবি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ, বান্দরবান জেলা কমিটি শাখা অভিষেক অনুষ্ঠান ও সরকারি চাকরিজীবি সমাবেশ ২০১৮ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৫১ সদস্য বিশিষ্ট স্বাধীনতা সরকারি চাকরিজীবি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ, বান্দরবান জেলা শাখা কমিটি গঠিত হয়। এসময় বান্দরবান পার্বত্য জেলার বিভিন্ন সরকারী প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

আজ শুক্রবার ২১ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩ ঘটিকার সময় বান্দরবান ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট অডিটরিয়াম হলে সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। সভাপতিত্ব করেন, মংশৈচিং চাক সভাপতি স্বাধীনতা সরকারি চাকরিজীবি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ,বান্দরবান জেলা শাখা।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,ক্য শৈহ্লা জেলা পরিষদে চেয়ারম্যান,মোঃ জাকির হোসেন মজুমদার পুলিশ সুপার, বান্দরবান সদর ইউএনও মোঃনোমান হোসেন, আব্দুল মান্নান বিশ্বাস। প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান স্বাধীনতা সরকারী চাকরিজীবি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ,মোঃ গোলাম রসুল রাসেল মহাসচিব স্বাধীনতা সরকারী চাকরিজীবি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি,নজরুল ইসলাম অতিরিক্ত মহাসচিব(প্রশাসন) সরকারী চাকরিজীবি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ,কেন্দ্রীয় কমিটি,

অনুষ্ঠান শুরুতে স্বাধীনতা সরকারি চাকরিজীবি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ, বান্দরবান পার্বত্য জেলা শাখা কমিটিকে শপদ গ্রহনের মাধ্যমে নতুন কমিটিকে অভিনন্দন জ্ঞাপন করেন প্রধান অতিথি এবং ঢাকার কেন্দ্রীয় প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান বিশ্বাস।

এসময় বক্তারা বলেন, আমরা নিরপেক্ষ নয়, আমরা স্বাধীনতার পক্ষে। বঙ্গবন্ধু সপ্ন পুরন করতে হলে বঙ্গবন্ধুর আর্দশ মেনে চলতে হবে। ৩য় শ্রেণী,৪র্থ শ্রেণী নয় এখন আমরা সবাই গণ প্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের কর্মচারী ।

কেন্দ্রীয় প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান বিশ্বাস বলেন, ২০১৫ সালে শেখ হাসিনা নির্দেশে এই সংগঠনটি গঠিত হয়। বাংলাদেশে দুই সরকার শাসন করেছে তারা কোনদিন সরকারী চাকুরীজীবিদের সুযোগ সুবিধা কথা চিন্তা করে নাই। বর্তমান সরকার বিভিন্ন উৎসব ভাতা, বেতন ভাতা বাড়িয়ে দিচ্ছে। তাই নয় সরকারী চাকুরিজীবিদের ঘড় নির্মানের জন্য গৃহ লোনও দিচ্ছে। টেকনাফ থেকে টেটুলিয়াসহ সারা বাংলাদেশে সরকারী,আধা-সরকারী মোট২৮ লাখ উপরে কর্মচারী রয়েছে। তাদের পরিবারকেগুলোকে আহবান জানাবো আগামী সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগকে নির্বাচিত করতে এবং বান্দরবানে বীর বাহাদুর ছাড়া বিকল্প নেই। তাই নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার অনুরোধ জানান সমাবেশে আশা কর্মচারীদেরকে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতি মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, ‌‌আমরা কখনো বলি নাই পার্বত্য অঞ্চলের শান্তি চুক্তি বন্ধ হয়ে গেছে। যা হয়েছে কম হয়নি। যেটুকু হয়নি সেইটুকু করার জন্য আমাদেরকে আরো দ্রুত কাজ করতে হবে। পূর্ব পাকিস্তান আমলে এই জাতির কোন রাষ্ট্র ছিল না । জাতির কোন পরিচয় ছিল না । জাতীয় সঙ্গীত ও মাতৃভাষার দিয়ে কথা বলার অধিকার ছিল না, নিজেদের স্বাধীন ভূখণ্ড ছিল না। একমাত্র জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কারণেই আমরা একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র পেয়েছি ।
আরো বলেন, বর্তমান সরকার আসার পর সরকারী চাকরিজীবিদের বিভিন্ন ধরনের উৎসব ভাতা প্রদান করা হয়েছে। বান্দরবানে নতুন শাখা কমিটিকে তিন তলা ফাউন্ডেশনে একতলা ভবন নির্মান করে দেয়া হবে বলেন প্রতি মন্ত্রী।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology