মঙ্গলবার, ২৭ Jul ২০২১, ০৭:০৭ পূর্বাহ্ন

২০ বছরে ও সংস্কার হয়নি ধলঘাটার জেটিটি, যেন মরণ ফাঁদ দেখার কেউ নেই

২০ বছরে ও সংস্কার হয়নি ধলঘাটার জেটিটি, যেন মরণ ফাঁদ দেখার কেউ নেই

সরওয়ার কামাল,মহেশখালী সংবাদদাতাঃ
ধলঘাটার ১২ হাজার মানুষের জন্য একটিই মাত্র ঘাট। বিগত ২০ বছর আগে নির্মিত হয়েছিল জেটিঘাটটি ।

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, মহেশখালী উপজেলার ধলঘাটার জেটিঘাটটি মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে । প্রতি বছর সরকার উপকূলীয় এলাকার জন্য কোটি কোটি টাকা বরাদ্দ দিলে ও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। উপজেলার ধলঘাট ইউনিয়নে মেগা প্রকল্প অর্থনৈতিক জোন ঘোষনা করেছেন সরকার। ইতিমধ্যে কয়েকটি প্রকল্পের তোড়জোড় শুরু হয়েছে। তার পরেও ভাগ্য কখনো ফিরে না ধলঘাটা উপকূলের হতভাগা বাসিন্দাদের। সংস্কারও হচ্ছে না ভেঙ্গে ফেলাও হচ্ছে না। যার ফলে ঝুঁকিপূর্ণ জেটিতে প্রতিনিয়িত দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে জনসাধারণ।

ঘাটের ইজারাদার আকতার আহমদ জনান , জেটিটি নিমার্ণের শুরু থেকেই মানুষ উঠা-নামা করতে সমস্যায় পড়তে হয়। জোয়ারের সময় এই জেটি দিয়ে চলাচল করা অনেকটা দুরুহ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কোন রোগী আনা নেওয়া করতে মরাত্মক সমস্যা হচ্ছে। প্রতিদিন হাটু পরিমাণ কাঁদা ডিঙ্গিয়ে জেটির কাছে আসতে হয়। এ ছাড়া ও জেটি মাঝখানে কিছু অংশ ভেঙ্গে পড়েছে।

ধলঘাটা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ছৈয়দুল আলম বলেন, ধলঘাটা ইউনিয়নের লোকজনের নদী পথ যোগাযোগ ব্যবস্থার অন্যতম নির্ভরযোগ্য পথ হলেও যুগযুগ ধরে জেটি ঘাটটি সংস্কার হয়নি ।

ধলঘাটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যান কামরুল হাসান বলেন, জেটিটির কারণে পুরো ইউনিয়ন এখন অন্ধকার। জেটিটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে নতুন জেটি নিমার্ণের জন্য কক্সবাজার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও এলজিডিই’র বরাবরে আবেদন করা হয়েছে।

ভালো লাগলে সংবাদটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Bandarban Pratidin.com
Design & Developed BY CHT Technology